০৫ ডিসেম্বর, ২০২২
ইঞ্জিনিয়ারিং
পণ্য:গোবর থেকে প্রাকৃতিক গ্যাস সিএনজি উৎপাদন
গোবর থেকে প্রাকৃতিক গ্যাস সিএনজি উৎপাদন
সম্ভাব্য পুঁজি: ৩৫০০০০০ টাকা থেকে ৫০০০০০০ টাকা পর্যন্ত
সম্ভাব্য লাভ:

২৬০০ কেজি গোবর থেকে ৩৩৬ কিউবেক মিটার সিএনজি উৎপাদিত হবে।  যার বাজার মুল্য  ১০,০০০ টাকা।

সুবিধা:

গবাদি পশুর গোবর ও মূত্র প্রক্রিয়াজাত করে এতদিন শুধু বায়োগ্যাসই উৎপাদিত হতো। এখন উৎপাদিত হচ্ছে রূপান্তরিত প্রাকৃতিক গ্যাস (সিএনজি)।  আর এটা হয়েছে সিলেট শহরতলির বালুচরে।এর আগে দেশে একমাত্র গোবর থেকে সিএনজি গ্যাস উৎপাদনের প্লান্ট ছিলো বান্দরবানে। বায়োগ্যাস থেকে সিএনজি উৎপাদন করা হলে ভূগর্ভস্থ গ্যাসের উপর চাপ কমবে।১০০টি গরুর গোবর দিয়ে প্রতিদিন উৎপাদন করা যায় প্রায় ১০-১৫ কিলোওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করা সম্ভব।

প্রয়োজনীয় উপকরণ:

বায়োগ্যাসের মধ্যে ৪০ ভাগ কার্বন ডাই-অঙ্াইড ও ৬০ ভাগ মিথেন থাকে। মিথেনই হচ্ছে সিএনজির মূল উপাদান। হাই কমপ্রেসারের মাধ্যমে বায়োগ্যাস থেকে কার্বন ডাই-অঙ্াইড অপসারণ করা গেলে সিএনজি উৎপাদন সম্ভব। এজন্য প্রয়োজন গবাদি পশুর গোবর,ম্রত্র, ট্যাংক, ফিল্টার , কমপ্রেসার ইত্যাদী।

গোবর ও মূত্র দিয়ে প্রথমে বায়োগ্যাস উৎপন্ন করে কমপ্রেসারের মাধ্যমে বড় ট্যাংকের মধ্যে রিজার্ভ করতে হয়। পরবর্তীতে রিজার্ভ ট্যাংক হতে কয়েক রকমের ফিল্টার ও কমপ্রেসারের মাধ্যমে কার্বন ডাই-অক্সাইড অপসারণ করে বায়োগ্যাসকে সিএনজিতে রূপান্তর করা হয়।

প্রস্তুত প্রণালি:

প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও অনুমতিপত্র সংগ্রহ করার পর সিএনজি তৈরির জন্য প্রথমে বায়োগ্যাস উৎপন্ন করে কমপ্রেসারের মাধ্যমে বড় ট্যাংকের মধ্যে রিজার্ভ করতে হবে। এরপর রিজার্ভ ট্যাংক হতে কয়েক রকমের ফিল্টার ও কমপ্রেসারের মাধ্যমে কার্বন-ডাই-অক্সাইড অপসারণ করে বায়োগ্যাসকে সিএনজিতে রূপান্তর করা হয়। বায়োগ্যাসের মধ্যে ৪০% কার্বন-ডাই-অক্সাইড ও ৬০% মিথেন থাকে। মিথেনই হচ্ছে সিএনজির মূল উৎপাদক।

বাজারজাতকরণ:

যে সব গাড়ি সিএনজিতে চলে এমন সব গাড়িই এর ভোক্তা হবে।

যোগ্যতা:

প্রশিক্ষন নিতে হবে।বর্তমানে বাংলাদেশের সিলেট শহরতলির বালুচরে খোকন দাস নামের এক যুবক গোবর থেকে সিএনজি ইৎপাদনের জন্য কাজ করছে। আগ্রহীরা যোগাযোগ করতে পারেন।

আমাদের বিষয়ে
about-us

সবার জন্য শিক্ষা নিশ্চিত করতে সরকার কাজ করে যাচ্ছে নিরলসভাবে। কিন্তু শিক্ষিত এসব মানুষের কর্মসংস্থানের উদ্যোগ নিচ্ছে না তেমন কেউ। বেকারত্ব বাড়ছে গাণিতিক হারে। আর তাই চাকরির বাজারে ঘুরে ঘুরে হতাশায় ডুবে যাচ্ছে তরুণ সমাজ। বুদ্ধি আছে, শ্রম দেওয়ার ইচ্ছা আছে কিন্তু পথ চেনা নেই। তাই শ্রমশক্তির অপচয় হচ্ছে নানা সামাজিক অপরাধের মধ্য দিয়ে। পরিবারেও বাড়ছে অশান্তি। মুক্তির পথ জানা নেই, কিন্তু মুক্তি চাই। আমরা luckyideabd.com জানাচ্ছি আপনাকে সেই হতাশার জগৎ থেকে মুক্তির পথ। আমাদের ভুবনে আপনাকে স্বাগত।

আরো পড়ুন
Other

Welcome to www.Luckyideabd.com This is the first time the world has seen a free webpage for business idea. We are working on the connection of your job and passion Build up your prosperous future according to your endeavour. ability and fondness Chose your own focus.

Welcome to www.Luckyideabd.com This is the first time the world has seen a free webpage for business idea. We are working on the connection of your job and passion Build up your prosperous future according to your endeavour. ability and fondness Chose your own focus.